Main menu

Tag Archives: বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

বাঙ্গালির উৎপত্তি – বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় (শর্ট ভার্সন)

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের এই লেখাটা বঙ্গদর্শন পত্রিকার (পৌষ, ১২৮৭ থিকা জৈষ্ঠ্য ১২৮৮, বাংলা সন) ছয়টা সংখ্যায় ছাপা হইছিল। সময়ের হিসাবে, বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ই হইতেছেন পয়লা লোক, যিনি বাংলা-ভাষায় বাঙ্গালি জাতির ইতিহাস নিয়া লেখছেন (বঙ্গে ব্রাাহ্মণাধিকার, ১৮৭২ সন)। উনার আগে, কলোনিয়াল পিরিয়ডের হিস্ট্রি-চর্চায়…

বঙ্গদর্শনের পত্রসূচনা

১৮৭২ সালের ১২ ই এপ্রিল (বাংলা ১২৭৯ সনের পয়লা বৈশাখ) বঙ্গদর্শন পত্রিকার ফার্স্ট এডিশন ছাপা হয়। পত্রিকার শুরুতেই এডিটর বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় কেন এই পত্রিকা ছাপাইতেছেন, সেইটা নিয়া এডিটোরিয়াল লেখেন, ‘পত্রসূচনা’ নাম দিয়া। পরে উনার “বিবিধ প্রবন্ধ” (১৮৯২) বইয়ে এই লেখা…

বঙ্কিম’স এডভাইস

বাংলাদেশের ইউনির্ভাসিটিগুলাতে ক্রিয়েটিভ রাইটিংয়ের উপ্রে কোন কোর্স আছে বইলা জানা নাই। বাংলা-একাডেমি কবি এবং গল্পকার পয়দা করার যে প্রজেক্ট নিছিলো, সেইটা ওয়াইডলি স্প্রেড হয় নাই আর। আবৃত্তি-করা বা শুদ্ধ উচ্চারণের কোর্সও হয় অনেক জায়গায়। বিশ্ব-সাহিত্য কেন্দ্রও মনেহয় বই-ই পড়ায় খালি,…

বাঙ্গালা ভাষা – গ্রাডুএট্ (হরপ্রসাদ শাস্ত্রী)।

হরপ্রসাদ শাস্ত্রী’র এই লেখা বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় ছাপাইছিলেন বঙ্গদর্শনে (৮ নাম্বার সংখ্যা, শ্রাবণ, প. ১৮৩ – ১৮৮; বাংলা ১২৮৮ সন, আনুমানিক খৃষ্ট সন ১৮৮১)। পরে হুমাযূন আজাদ উনার ‘বাঙলা ভাষা’ বইয়ের দ্বিতীয় খন্ডে (আগামী প্রকাশনী, ১৯৮৪, নতুন ভার্সন ২০০৯-এ) ‘ভাষা-পরিকল্পনা’ সেকশনে…

ইমরুল হাসান-এর ‘মকারি’

মকারি জিনিসটা হিউমারাস হইলেও, ঠিক হিউমার না; একটু ইনফিরিয়র, ভোঁতা টাইপের জিনিস; একটা সেন্স অফ অরিজিনালিটি থাকতে হয় আগে তা নাইলে মকারি হয় না। একটা জিনিস আছে অরিজিনাল, সুন্দর, আপনি তারে ভেঙ্গাইলেন। তো, ওইটা না থাকলে তো হইলো না, অরিজিনাল’টারে…

[facebook url="https://www.facebook.com/WordPresscom/posts/10154113693553980"]
  1. ক্রিয়েটিভ আর্ট
  2. ক্রিটিকস
  3. তত্ত্ব ও দর্শন
  4. ইন্টারভিউ
  5. তর্ক
  6. অন্যান্য